ব্যক্তি ও পরিবারের জন্য

সাইবার সিকিউরিটি » ব্যক্তি ও পরিবারের জন্য
সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষার উপায়
→ ডি এস এ

সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষ করে ফেসবুক একাউন্ট খোলার সময় আপনার যে মোবাইল নম্বর বা ইমেইল এড্রেস ব্যবহার করবেন সেগুলো সবসময় চালু রাখুন। কেননা হ্যাকার আপনার একাউন্টের পাসওয়ার্ড বা ইমেইল এড্রেস পরিবর্তন করলে সাথে সাথেই ফেসবুক হতে ইমেইল পাঠিয়ে (একাউন্ট হোল্ডারকে) সতর্ক করে একটি রিকোভারি লিঙ্ক পাঠিয়ে দেয়; তাতে ক্লিক করে সহজেই হওয়া আইডি রিকভার করা সম্ভব।·  সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টে টু ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন (F2A) অপশনটি চালু রাখুন। এজন্য ফেসবুকের সেটিংস অপশনে security and login অপশনে থাকা two factor authentication এ গিয়ে মোবাইল নম্বর কিংবা ইমেইল যুক্ত করুন। ·   সরল/দুর্বল পাসওয়ার্ড ব্যবহার না করে শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন। ব্যক্তিগত তথ্যের সাথে সংশ্লিষ্ট তথ্য (জন্মতারিখ, নিজের নাম, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম ইত্যাদি) পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।·    Capital letter, Small Letter, Number & Symbol মিলিয়ে কমপক্ষে ১২ ক্যারেক্টারের শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন।·    ফেসবুকের ক্ষেত্রে Trusted Contact এ ৩ থেকে ৫ জন ঘনিষ্ঠ ফেসবুক বন্ধুকে যুক্ত রাখুন। এর ফলে আইডি হ্যাক হয়ে গেলেও তা উদ্ধার করা সহজ হবে।·    সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট খোলার সময় জাতীয় পরিচয়পত্রের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নাম ও জন্মতারিখ ব্যবহার করুন। এতে আপনার আইডি হ্যাক হলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা সহজ হবে।·     জন্ম তারিখ, ফোন নাম্বারসহ অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্য উন্মুক্ত রাখবেন না। এতে বিভিন্ন রকমের হয়রানি ও প্রতারণা থেকে নিজেকে মুক্ত রাখা সহজ হবে।ফেসবুকের ক্ষেত্রে Privacy Settings অপশনটি ব্যবহারের মাধ্যমে ব্যক্তিগত তথ্য, ছবি, পোস্টের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন। প্রয়োজনে প্রোফাইল লক করে রাখুন।ছবিঃ সংগৃহীত 

আপনার আই ফোনটি হারিয়ে গেলে খুঁজে পাবেন কিভাবে
→ ডি এস এ

আপনার হারিয়ে যাওয়া আই ফোনের হদিস জানতে আপনাকে আগে থেকে যেসব বিষয়ে নজর রাখতে হবে সেগুলো হলো –আপনার আই ফোনটি আপডেট রাখুন। iOS 13 বা পরবর্তি ভার্শন ব্যবহার করুন।Apple Watch আপডেট রাখুন।লোকেশন সার্ভিস এবং Find My Device অপশন চালু রাখুন।কিভাবে খুঁজে বের করবেন  আপনার ডিভাইসটি হারিয়ে যাওয়ার আগে আপনি যদি Find My Device অপশন চালু রাখেন তাহলে এই অপশনটি ব্যবহার করেই আপনি আপনার আই ফোন খুঁজে বের করতে পারবেন। এছাড়াও আপনার ফোনের Offline Findings অন্য রাখার সুবাদে আপনার আই ফোনটি কোন নেটওয়ার্কের সাথে কানেক্টেড না থাকলে তা খুঁজে বের করতে পারবেন।আপনার আই ফোন টি ম্যাপে খুঁজে বের করার জন্যFind My App ওপেন করুন।Device ট্যাব বাছাই করুন।  ম্যাপে লোকেশন দেখার জন্য Device টি সিলেক্ট করুন।আপনার ফোনে রিং বাজানোর জন্যFind My App ওপেন করুন।Device ট্যাব বাছাই করুন। আপনার হারিয়ে যাওয়া Device টি সিলেক্ট করুন এবং Play Sound অপশনটি বেছে নিন। এক্ষেত্রে আপনার ফোনটি অফলাইনে থাকলে কোন রিং হবে না। তবে কোন নেটওয়ার্কের সাথে কানেক্টেড থাকলে রিং হবে।ম্যাপে আপনার ফোনের ডিরেকশন পেতে Find My App ওপেন করুন। Device ট্যাব বাছাই করুন।আপনার হারিয়ে যাওয়া Device টি সিলেক্ট করুন এবং ম্যাপে আপনার ফোনের অবস্থান দেখতে Directions সিলেক্ট করুন।  ছবিঃ সংগৃহীত

হারানো ফোন খুঁজে পাওয়ার উপায়
→ ডি এস এ

আমাদের অনেকেরই ফোন হারিয়ে যাওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে। এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রে ফোন হারিয়ে গেলে তা ফিরে পাওয়ার আশা আমরা ছেড়েই দেই। কিন্তু গুগল আপনার হারানো ফোনের হদিস বের করার উপায় বের করেছে। গুগলের এই সার্ভিস পাওয়ার জন্য ফোন আপনার ফোনের কিছু অপশন চালু রাখতে হবে। (দেখুনঃ ফোন হারিয়ে গেলে কি করবেন [লিংক] আপনার এন্ড্রয়েড সেটটি এই মুহুর্তে কোথায় আছে এটা জানার জন্য নিচের পদ্ধতি অনুসরণ করুন –প্রথমে https://android.com/find এই লিঙ্কে প্রবেশ করুন এবং আপনার গুগল একাউন্টে সাইন ইন করুন।আপনার একাধিক ফোন থাকলে স্ক্রিনের উপরের লস্ট ফোন বাটনে ক্লিক করুন।আপনার হারিয়ে ফোনে একাধিক ইউজার প্রোফাইল থাকলে আপনার মুল প্রোফাইলের গুগল একাউন্টে সাইন ইন করুন।আপনার হারিয়ে যাওয়া ফোনটিতে একটি নোটিফিকেশন পৌঁছাবে।এছাড়াও আপনার ফোন গুগলের সাথে লিঙ্ক করা থাকলে google.com এ গিয়ে find my phone দিয়ে সার্চ করে ফোনটি খুঁজে বের করতে বা রিমোটলি ফোনের রিং অন করতে পারবেন।ছবিঃ সংগৃহীত

হারানো ফোনের ডাটা মুছে ফেলার উপায়
→ ডি এস এ

আপনার এন্ড্রয়েড সেটটি এই মুহুর্তে কোথায় আছে এটা জানার জন্য প্রথমে https://android.com/find এই লিঙ্কে প্রবেশ করুন এবং আপনার গুগল একাউন্টে সাইন ইন করুন। এতে আপনার হারিয়ে যাওয়া ফোনটিতে একটি নোটিফিকেশন পৌঁছাবে। এরপর ম্যাপে আপনি আপনার ফোনের লোকেশন দেখতে পাবেন। আপনার ফোনের এই অবস্থান শতভাগ সঠিক না হলেও কাছাকাছিই হবে। যদি আপনার ফোনের লোকেশন না দেখা যায় তবুও অন্তত আপনার ফোনের সর্বশেষ অবস্থান আপনি ম্যাপে দেখতে পাবেন।  এরপর নিচের অপশনগুলো থেকে আপনার পছন্দের অপশন সিলেক্ট করুন। প্রয়োজন হলে প্রথমেই Enable lock & erase বাটনে ক্লিক করুন। এছাড়াও রিমোটলি আপনার ফোনের যেসকল অপশন আপনি ব্যবহার করতে পারবেন সেগুলো হলো –Play Sound: হারানোর আগে আপনার ফোন সাইলেন্ট বা ভাইব্রেশন মুডে থাকলেও ৫ মিনিট ধরে আপনার ফোনের সর্বোচ্চ সাউন্ড ব্যবহার করে রিংগিং সাউন্ড প্লে করতে পারেন।Source Device:  আপনার পিন, পাসওয়ার্ড বা প্যাটার্ন ব্যবহার করে ফোনটি লক করে দিতে পারেন। আগে থেকে আপনার ফোনে কোন লক না থাকলেও এসময় আপনি লক সেট করতে পারবেন। এবং লক স্ক্রিনে আপনি মেসেজ বা ফোন নাম্বারও চাইলে এড করতে পারেন। Erase Device: আপনার ফোনের সমস্ত ডাটা স্থায়ীভাবে ডিলিট করতে পারেণ। তবে আপনার এস ডি কার্ডের ডাটা হয়তো ডিলিট হবে না। মনে রাখবেন ডাটা মুছে দেয়ার পর আপনার ফোনের Find My Device অপশনটি আর কাজ করবে না।ছবিঃ সংগৃহীত

হেল্প ডেস্ক